জুমআর দিন গােসল করা ।

10 months ago

رَوى أبو داودَ وَالترمذي وَالنَّسَاءي عَنْ قَتَادَة رضي الله عنه قال : قال رَسُولُ اللهِ صلي الله عليه وسلم ) : ( ( مَن تَوَضا يَوْمَ الْجُمُعَةِ فَبِهَا وَنِعمَت ، وَمَنِ اغتَسَلَ فَالْغسل أفضل ) وَهُوَ مَذهَبُ جُمْهُورِ الْعُلَمَاء وَفُقَهَاء الْامصارِ. وَهُوَ الْمَعْرُوف مِن مَذهَبِ مَالِك وَأَصحَابِهِ الأبرار قَالَ مُحَمّد في ( مُوَطءه ) : الْغسل أفضل يَوْمَ الْجُمُعَةِ وَ ليس بواجب ، وفي ( شرح النقاية ) ثمّ هَذَا الْغسل للْيَوْمِ عِنْدَ الْحَسَنِ بنِ زِيَادِ . وَلِلصَّلاةِ عِنْدَ أبي يُوسُفَ ، وَهُوَ الأصح . ط



PSX_20181203_204532.jpg



  • আবুদাউদ , তিরমিযী এবং নাসায়ী কাতাদা রা . থেকে বর্ণনা করেন , তিনি বলেন , রাসূল সা . বলেছেন যে জুমআর দিন ওযু করলাে , তবে সেটা ভালাে এবং উত্তম ( কাজ করলাে ) । আর যে গোসল করলো , তবে গোসল সবশ্রেষ্ট । ( তিরমিযী - জুমআ - ৪৯৭ , আবুদাউদ - তাহারাত - ৩৫৪ , নাসায় সাহু - ১৩৮ ) । এটি সংখ্যাগরিষ্ঠ উলামা ও ফুকাহায়ে কেরামের অভিমত । এটিই ইমাম মালিক ও তার অনুসারীদের প্রসিদ্ধ অভিমত । ইমাম মুহাম্মদ মুআত্তায় বলেন , জুমআর দিন গোসল উত্তম । তবে ওয়াজিব নয় । শরহুন নিকায় ( ১ / ৮০ ) গ্রন্থে রয়েছে , অত : পর এই গােসল হাসান ইবনে যিয়াদের মতে , দিনের ( সুন্নত ) এবং আবু ইউসুফের মতে , নামাজের ( সুন্নত ) । আর এটিই বিশুদ্ধতম ।


IntroText_20181225_203245.gif



  • কেননা , রাসূল সা . বলেছেন : যখন তােমাদের কেউ জুমআয় গমন ( করার ইচ্ছা ) করবে , তখন সে যেনাে গােসল করে । বুখারী ( জুমআ - ৮৭৭ , ৮৯৪ , ১১১ ) মুসলিম ( জুমআ - ৮৪৪ , ৮৪৫ ) ।

  • এবং মুসলিম আবু সাঈদ খুদরী রা . থেকে বর্ণনা করেন , ( রাসূল সা . বলেছেন ) জুমআর দিন প্রত্যেক সাবালকের উপর গােসল করা ওয়াজিব । ( মুসলিম - জুমআ - ৮৪৬ ) । আল্লামা নববী শরহে মুসলিমে বলেন , অর্থাৎ , এর হক গুরুত্বপূর্ণ । যেমন কেউ তার সাথীকে বলে , তােমার হক আমার উপর ওয়াজিব তথা গুরুত্বপূর্ণ । এটা উদ্দেশ নয় যে , এটি অবশ্যম্ভাবী ওয়াজিব এবং এটি আদায় না করলে শাস্তিভােগ করতে হবে । শরহুন নিকায় ( ১ / ৮০ ) গ্রন্থে অনুরূপ রয়েছে ।



IntroText_20181214_145152.gif



Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE WEKU!
Sort Order:  trending